সাংবাদিকের চোখে: মুহূর্তেই পড়ে গেলেন ওরা

Published: March 28, 2019 12:55 pm | Updated: March 28, 2019 1:03 pm

পিবিএ, ঢাকা: রাজধানীর বনানীর ১৭ নম্বর রোডের যে ভবনে ভয়াবহ আগুন লাগে, সেই এফআর টাওয়ারের খুব কাছেই পরিবর্তন ডটকম অফিস। ১২টার দিকে অফিসে এসে একজন খবর দিলেন আগুন লাগার খবরটি। নিচে নেমেই দেখলাম ভবনটির ৯ তলায় দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন।

আশপাশের বিভিন্ন অফিসের লোকজন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শত শত শিক্ষার্থী জড়ো হয়েছে উদ্ধার কাজে।

ভবনটির একদম উল্টোদিকে চলে গেলাম। তখনও ফায়ার ব্রিগেডের কর্মীরা আসেন নি। স্থানীয়দের সহায়তায় কাউকে উদ্ধার করা যায় কি না সেটার চেষ্টা করলাম।

এরই মাঝে উচু ভবনে ঝুলে থাকা  ক্যাবল বেয়ে অনেককে নামতে দেখলাম।

দেখলাম ৯ তলার একটি ফ্লোরের  জানালা দিয়ে ক্যাবল বেয়ে নামছেন একজন। পাশেই দাউ দাউ করে আগুনের লেলিহান শিখা। ৯ তলা থেকে ক্যাবল বেয়ে যখন নামছিলেন সেই লোক, তার পরপরই আরেকজনকে একই ভাবে নামতে দেখলাম।

কিছুক্ষণের মধ্যেই ভয়াবহ আগুনের সাথে কালো ধোঁয়া পুরো আশপাশে ছড়িয়ে পড়ল। বাঁচার আকুতি নিয়ে এরপর একে একে অনেকেই তার বেয়ে নেমে আসার চেষ্টা করলেন।

এক তরুণীকে দেখলাম একইভাবে নামার চেষ্টা করছেন। কয়েক ফুট নামার পরপরই হাত ফসতে নিচের এক ভবনের এসির ওপর পড়লেন সেই তরুণী। ভাগ্যক্রমে ক্যাবল ধরে ঝুলে রইলেন তিনি। সেখানে ক্যাবল ধরে আরেকজন ছিলেন। সেই লোক সেই তরুণীকে  নামতে সাহায্য করলেন।

ঠিক কিছুক্ষণ বাদে এক তরুণকে একইভাবে নামতে দেখলাম। আগুনের লেলিহান শিখা তার খুব পাশেই যেন। কয়েক সেকেন্ড বাদেই হাজার হাজার মানুষ ভয়ার্ত চিতকার করে উঠলেন। আমিও ভয়ার্ত চোখে তাকিয়ে ছিলাম পুরো মূহুর্ত। চোখের সামনেই ৮ তলা উচুতেই কয়েক পাক খেয়ে নিচে পড়ে গেলেন সেই তরুণটি।

এরপর পরই আরো দুইজনকে এভাবে নিচে পড়ে যেতে দেখলাম।

আশপাশে জড়ো হওয়া মানুষের অনেককেই তখন কাঁদতে দেখা যায়।

ভয়াবহ এই আগুনে এখন পর্যন্ত ১ জনের মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

ক্যাবল বেয়ে নিচে পড়ে যাওয়া আহতদের অবস্থা জানা যায়নি।